Home » ঘরে বসে মাসে ২০ হাজার টাকা আয় করার উপায় সম্পর্কে জানুন
মাসে ২০ হাজার টাকা আয় করার উপায়

ঘরে বসে মাসে ২০ হাজার টাকা আয় করার উপায় সম্পর্কে জানুন

আপনি কি মাসে ২০ হাজার টাকা আয় করার উপায় সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন। তাহলে এই আর্টিকেল টি মন দিয়ে পড়ুন। বর্তমানে ঘরে বসে মাসে ৩০ হাজার টাকা আয় করার উপায় জেনে নিন, আমরা সবাই স্মার্টফোন এ বেশি ব্যস্ত থাকি। কেউ কেউ সোশ্যাল মিডিয়ায়, নাটক, সিনেমা, বা ওয়েব সিরিজ দেখে সময় কাটান। যাইহোক, আপনি সময় ব্যয় না করে আপনার স্মার্টফোন ব্যবহার করে ঘরে বসে অর্থ উপার্জন করতে পারেন। সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলি অর্থ উপার্জনের অন্যতম মাধ্যম।এটা হচ্ছে স্টুডেন্টের অনলাইন ইনকাম করার উপায় । এজন্য আপনি কোনো বিশেষ দক্ষতা বা ডিগ্রি ছাড়াই আয় করতে পারেন। আপনার কেবল ইচ্ছাশক্তি এবং সঠিক প্ল্যাটফর্ম থাকতে হবে।

মাসে ২০ হাজার টাকা আয় করার উপায়

আজকাল অনলাইনে আয় করা বেশ সহজ হয়ে গেছে। এমনকি কোনো বিশেষ ডিগ্রি বা দক্ষতা ছাড়াই ঘরে বসেই অনলাইনে মাসে হাজার হাজার টাকা আয় করছেন অনেকে। বতমানে সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলি অর্থ উপার্জনের অন্যতম মাধ্যম। মাসে ২০ হাজার টাকা আয় করার উপায় হচ্ছে ইউটিউব,ফেসবুক,ইনস্টাগ্রাম,টিকটক,ব্লগিং,  এই গুলোর মাধ্যমে কি ভাবে আয় করবেন নিচে বিস্তারিত দেওয়া হল।

মাসে ৩০ হাজার টাকা আয় করার উপায়

ফেসবুক থেকে আয় 2023 | ফেসবুকে কিভাবে টাকা আয় করা যায়

ইউটিউব থেকে আয়

ইউটিউব এর মাধ্যমে খুব সহজে অনলাইন থেকে আয় করা যায়। এতে আপনাকে একটি নির্দিষ্ট বিষয়ের উপর প্রতিদিন নতুন নতুন ভিডিও বানাতে হবে এবং নিয়মিত ভিডিও আপলোড করতে হবে। এবং ভিডিও আপলোড করার সময় ভিডিওতে টাইটেল, ডেসক্রিপশন, ট্যাগ, থাম্মেল ব্যবহার করতে হবে। তাহলে আপনার ভিডিওতে অনেক ভিউজ আসবে। এতে আপনি ইউটিউব থেকে মনিটাইজেশন পাবেন এবং আপনার ইনকাম শুরু হবে। এজন্য অবশ্যই আপনাকে ভালো ভিডিও বানানোর অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। বর্তমানে ইউটিউব থেকে অনেক কন্টেন্ট ক্রিয়েট মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করেন। 

ইউটিউব থেকে আয় করার ৫টি উপায় জেনে নিন

ফেসবুক থেকে আয় করার উপায়

ফেসবুক হচ্ছে একটি জনপ্রিয় মাধ্যম, ফেসবুকে এর মাধ্যমে খুব সহজেই আয় করতে পারবেন। ফেসবুকে একটি পেজ খুলে ভালো ভিডিও বানিয়ে আপলোড করে ইনকাম করতে পারবেন। আপনার ফেসবুক পেজে ৫,০০০ ফলোয়ার এবং ৬০,০০০ ঘন্টা ওয়াচ টাইম পূর্ণ হলে ইনস্টিম এডস” এর মাধ্যমে আপনার পেজ মনিটাইজেশন করে লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করতে পারবেন।

এছাড়াও বর্তমানে বেশিরভাগ মানুষ ফেসবুকে রিলস ভিডিও বানিয়ে “অ্যাডস অন রিলস” মনিটাইজেশন এর মাধ্যমে লাখ লাখ টাকা আয় করে থাকে। ফেসবুকে হাই কোয়ালিটি রিলস ভিডিও আপলোড করলে আপনার ভিডিওতে মিলিয়ন মিলিয়ন ভিউজ আসবে, এতে “অ্যাডস অন রিলস” এর মাধ্যমে প্রচুর টাকা আয় হবে।

ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয়

ইনস্টাগ্রাম হচ্ছে অনলাইনে টাকা উপার্জন করার আর একটি দুর্দান্ত প্লাটফর্ম। এজন্য আপনাকে ইনস্টাগ্রামে বিনামূল্যে একটি একাউন্ট করতে হবে। এই প্লাটফর্মটিতে বিভিন্ন ধরনের পণ্য বিক্রি করতে পারবেন। বর্তমানে বিশ্বের মিলিয়নেরও বেশি মানুষ ইন্সটাগ্রাম শপিং ব্যবহার করছেন। তাই আপনি ইনস্টাগ্রাম শপিং এর মাধ্যমে আপনার প্রোডাক্টগুলো খুব সহজেই সেল করে আয় করতে পারবেন।

এছাড়াও ইনস্টাগ্রাম এ রিলস ভিডি ওর মাধ্যমে মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করা সম্ভব। এখন অধিকাংশ মানুষ ইনস্টাগ্রামে রিলস ভিডিও বানিয়ে লাখ লাখ টাকা আয় করে।

টিকটক থেকে টাকা ইনকাম

টিকটক এ ভিডিও আপলোড করেও টাকা উপার্জন করা যায়। আমরা অনেকেই টিকটকে ভিডিও আপলোড করি। এই ভিডিও আপলোড করেও টাকা ইনকাম করা যায়। মুলত টিকটক থেকে ইনকাম করার জন্য আপনাকে কিছু শর্ত পূরণ করতে হবে। ন্যূনতম 10 হাজার রিয়েল ফলোয়ার লাগবে। এবং গত 30 দিনে 1 লক্ষ প্রকৃত ভিডিও ভিউ থাকতে হবে। তাহলে আপনি টিকটক খুব সহজেই অর্থ উপার্জন করতে পারেবেন।

 তবে আপনি যদি টিকটক এ শিক্ষামূলক ভিডিও আপলোড করেন, এর মানে এমন ভিডিও আপলোড করুন যা থেকে লোকেরা শিখতে পারে। তাহলে খুব কম সময়ের মধ্যে আপনার ভিডিও গুলি ভাইরাল হবে। এবং টিকটক কর্তৃপক্ষ আপনাকে পুরষ্কার প্রদান করবেন।

ব্লগিং করে কত টাকা আয় করা যায়

ঘরে বসে অনলাইনে আয় করার অন্যতম মাধ্যম হচ্ছে ব্লগিং। ব্লগিং হচ্ছে লাইফ টাইম ইনকামের একটি উপায়। ব্লগার এ আপনি ফ্রিতে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন। এই ওয়েবসাইটে আপনি একটি নির্দিষ্ট “নিস” এর উপর আর্টিকেল লিখে পোস্ট করুন এবং ওই ওয়েবসাইট থেকে গুগল এডস এর মাধ্যমে আপনি প্রচুর টাকা ইনকাম করতে পারবেন। বর্তমানে বিশ্বের অনেক মানুষ ব্লগিং এ লেখালেখি করে মাসে প্রচুর টাকা আয় করে থাকে। আপনিও চাইলে ব্লগিং এ লেখালেখি করে অনলাইন থেকে আয় করতে পারেন।

অনলাইন থেকে ইনকাম করার জন্য আপনাকে একটু পরিশ্রম করতে হবে এবং একটু ইউনিক কিছু করার চিন্তা করতে হবে। আপনি সফল হতে পারবেন। এবং প্রতিমাস অনেক টাকা আয় করতে পারবেন। 

মাসে ২০ হাজার টাকা আয় করার উপায় নিয়ে সচারচার প্রশ্ন উত্তর

ইউটিউব থেকে আয় করার শর্ত কি?

উত্তরঃ ইউটিউব থেকে আয় করার জন্য প্রথম ৫০০ সাবস্ক্রাইবার এবং ৩০০০ হাজার ঘন্টা ওয়াচ টাইম লাগবে। তারপর monetization এর জন্য আবেদন করতে পারবেন। monetization পেলে ইনকাম করতে পারবেন।

ফেসবুক থেকে কি আয় করা যায়?

উত্তরঃ জি, ফেসবুক থেকে monetization এর মাধমে আয় করা যায়।

শেষ কথা

সাফল্য অর্জন করতে এবং আপনার ফলোয়ার ও ভিউ বাড়াতে, আপনাকে সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টগুলিতে অ্যাক্টিভ থাকতে হবে। আপনি যে ধরনের ভিডিও এবং পোস্ট করেন সে গুলি নিয়মিত পোস্ট করবেন। তাহলে আপনার  ভিডিও ও পোস্ট গুলিতে ভিউ হবে এবং ভাইরাল হবে। এতে আপনার ইনকাম ও খুব ভালো হবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × two =

Scroll to Top