আর এস খতিয়ান অনলাইন চেক

আর এস খতিয়ান অনলাইন চেক করার নিয়ম ২০২৪

আপনি কি আর এস খতিয়ান অনলাইন চেক করতে জানেন না? তাহলে এই আর্টিকেলটি মন দিয়ে পড়ুন এই আর্টিকেলে থেকে জানতে পারবেন কিভাবে অনলাইন থেকে ঘরে বসে খুব সহজেই খতিয়ান চেক করবেন এবং অনলাইন কপি ডাউনলোড করবেন সে সম্পর্কে বিস্তারিত নিচে দেওয়া হয়েছে।

আর এস খতিয়ান কি?

RS খতিয়ান হলো বাংলাদেশের জমির মালিকানা এবং খাজনা সংক্রান্ত তথ্য সম্বলিত একটি সরকারি নথি। এই খতিয়ান টি জমির মালিকানা আইনি প্রমাণ হিসেবে ব্যবহৃত হয়। ১৯৭০ থেকে ৭১ সালে পাকিস্তানের আমলে এটি তৈরি করা হয়। আর এস খতিয়ান মধ্যে জমির অবস্থান, মালিকের নাম, দাগ নাম্বার, জমির পরিমাণ, হিস্যা, এবং খাজনার পরিমাণ ইত্যাদি উল্লেখ থাকে। এবং সরকার আর এস খতিয়ানের মাধ্যমে জমির খাজনা আদায় করে থাকে।

আর এস খতিয়ানের প্রয়োজন কেন?

RS খতিয়ান ও জমির মালিকানা প্রমাণের জন্য এটি খুব প্রয়োজন। এবং খাজনা দেওয়ার জন্য আর এস খতিয়ান একটি গুরুত্বপূর্ণ দলিল। এতে জমির মালিকের নাম, দাগ নাম্বার, মৌজা, জমির পরিমাণ, খাজনার পরিমাণ, ইত্যাদি তথ্য উল্লেখ থাকে। এবং জমি ক্রয় বিক্রয়, ঋণ বন্ধক, জমির উত্তরাধিকার ইত্যাদি ক্ষেত্রে আর এস খতিয়ানের প্রয়োজন হয়। 

আর এস খতিয়ান এর মধ্যে জমির সঠিক পরিমাণ, শ্রেণী, দাগ নম্বর, হিস্যা, মৌজা, ইত্যাদি সরবরাহ থাকে। এবং আর এস খতিয়ান এর মাধ্যমে জমির মালিক সরকারকে খাজনা প্রদান করা থাকে।

আর এস খতিয়ান পর্চা অনুসন্ধান কি?

খতিয়ান পচা অনুসন্ধান হল একটি মাধ্যম বা প্রক্রিয়া। যার মাধ্যমে আপনি খুব সহজে  খতিয়ান হাতে পাবেন। এর জন্য আপনাকে কোথাও যেতে হবে না। এখান থেকে আপনি মালিকের নাম অনুযায়ী ও বাবার নাম অনুযায়ী এবং খতিয়ান নাম্বার বা দাগ নাম্বার দিয়ে অনুসন্ধান করে আপনি আপনার জমিনের খতিয়ান বের করে নিতে পারবেন খুব সহজেই।

পুরাতন ভিটমেট সফটওয়্যার ডাউনলোড করুন

কিভাবে আর এস খতিয়ান অনলাইন চেক করব

অনলাইনে ঘরে বসেই খুব সহজেই খতিয়ান চেক করতে পারবেন এবং অনলাইন কপি ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। অনলাইনে খতিয়ান চেক করতে Eporcha.gov.bd এই ওয়েবসাইটে যেতে হবে। তারপর প্রথম বিভাগ সিলেট করুন, তারপর জেলা, উপজেলা, খতিয়ানের ধরন, মৌজা, সিলেক্ট করে দিলে আপনি অনেকগুলো খতিয়ানের লিস্ট দেখতে পাবেন এছাড়াও খতিয়ান নং, দাগ নাম্বার, মালিকের নাম অনুযায়ী খুঁজে বের করে নিতে পারবেন।

আর এস খতিয়ান অনলাইন কপি ডাউনলোড কিভাবে ডাউনলোড করবেন সেই সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে নিচে দেওয়া আর্টিকেলটি পড়ুন।

অনলাইনে জমির খতিয়ান ডাউনলোড করার নিয়ম

জমি কার নামে আছে কিভাবে দেখবো?

অনলাইনে খুব সহজে জমির মালিকের নাম দেখতে পারবেন। তবে তার জন্য জমির খতিয়ান নম্বর, দাগ নাম্বার, মৌজা, জেলা, উপজেলা, ইত্যাদি সঠিকভাবে জানা থাকতে হবে। 

  • প্রথমত eporcha.gov.bd এই ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
  • বিভাগ সিলেক্ট করতে হবে।
  • জেলা, উপজেলা, সিলেক্ট করতে হবে।
  • খতিয়ানের ধরন ও মৌজা সিলেক্ট করতে হবে।

তারপর খতিয়ানের তালিকা দেখতে পাবেন। খালি একটি বক্স দেখতে পাবেন ওই বক্সে খতিয়ান নাম্বার দিয়ে খুঁজুন এ ক্লিক করবেন। তাহলে আপনি জমির মালিকের নাম দেখতে পাবেন। এবং আপনার কাছে যদি খতিয়ান নাম্বার জানা না থাকে তাহলে নিচে “অধিকারত অনুসন্ধান” বাটনে ক্লিক করে দাগ নাম্বারটি দিয়ে খুঁজুন বাটনে ক্লিক করবেন। তাহলে আপনি সেই খতিয়ান এবং মালিকের নাম দেখতে পাবেন।

আর এস খতিয়ান নিয়ে জিজ্ঞাসিত প্রশ্ন উত্তর

আর এস এর পূর্ণরূপ কি?

RS এর পূর্ণরূপ হলো (Revisional Survey) রিভিশনাল সার্ভে। এই খতিয়ান টি আমাদের দেশের বর্তমান সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জমির দলিল।

আর এস খতিয়ান কত সালে হয়?

আর এস খতিয়ান  ১৯৭০ থেকে ৭১ সালে পাকিস্তানের আমলে এটি তৈরি করা হয়।

উপসংহার

উপরে আর এস খতিয়ান অনলাইন চেক করবেন কিভাবে সে নিয়ে বিস্তারিত দেওয়া হয়েছে। আশা করি আপনারা আর এস খতিয়ান সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা পেয়েছেন। এবং কিভাবে আর এস খতিয়ান যাচাই করবেন সে সম্পর্কেও জানতে পারছেন। মনে রাখবেন আর এস খতিয়ান একটি গুরুত্বপূর্ণ দলিল। এই আর্টিকেলটি ভালো লাগলে একটি কমেন্ট করে যাবেন ধন্যবাদ।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 + eleven =

Scroll to Top